Wednesday , August 22 2018
Breaking News

কম্পিউটার অন হচ্ছে না? কি করবেন?

সত্যিই দিনটি অনেক খারাপ যাবে, সকালে কম্পিউটারের সামনে বসলেন পাওয়ার সুইচ প্রেস করলেন কিন্তু দেখছেন, আপনার কম্পিউটার অন হচ্ছে না। হ্যাঁ, কম্পিউটারে নানান প্রকারের সমস্যা ঘটতে পারে, কিন্তু সবচাইতে বিরক্তিকর সমস্যা হচ্ছে কম্পিউটার বুট না নেওয়া। নানান কারণে আপনার কম্পিউটার অন না হতে পারে, কিন্তু অনেক সময় কম্পিউটার অন না হওয়া মানে, হার্ডওয়্যার যেমন- মাদারবোর্ড অথবা সিপিইউ পরিবর্তন করানোর মতো সমস্যা তৈরি করতে পারে। যাই হোক, এই আর্টিকেলে আমি কম্পিউটার/ল্যাপটপ/পিসি অন না হওয়ার কারণ গুলো এবং সম্ভাব্য সমাধান গুলো উল্লেখ্য করেছি।

আর হ্যাঁ, চিন্তা করার কোন কারণ নেই, আপনার কম্পিউটার অন হচ্ছে না তো কি হয়েছে? আপনার ডাটা গুলো এখনো সুরক্ষিতই রয়েছে। আপনি উইন্ডোজের যে ভার্সনই ব্যবহার করুণ না কেন, লিনাক্স লাইভ ইউএসবি ব্যবহার করে সহজেই আপনার ডাটা গুলোকে অ্যাক্সেস করা সম্ভব।

পাওয়ার সাপ্লাই পর্যবেক্ষণ করুণ
যদিও কম্পিউটার অন না হওয়ার বেশিরভাগ কারণ কম্পিউটার হার্ডওয়্যার জনিত সমস্যার কারণে হয়ে থাকে। কিন্তু তারপরেও অনেক সময় অনেক ছোটখাটো কারণেই কম্পিউটার না অন হতে পারে, সেটা আগে খুঁজে বেড় করা দরকার। একটা কথা আছে না, বগলে ছাতা রেখে সাড়া দুনিয়া সেটাকে খুঁজে বেড়ানো! —প্রথমে দেখুন, আপনার কম্পিউটারের প্লাগ ঠিকঠাক মতো ওয়াল সকেটে লাগানো রয়েছে কিনা। যদি ঠিক থাকে তো এর পরে হতে পারে আপনি ইউপিএস ব্যবহার করেন, অনেক সময় ইউপিএস’এ সমস্যা থাকার কারণে আপনার কম্পিউটার অন না হতে পারে। হয়তো বা ইউপিএস ঠিকঠাক মতো পাওয়ার কম্পিউটারকে সরবরাহ করতে পাড়ছে না। ইউপিএস বাদ দিয়ে সরাসরি কম্পিউটার পাওয়ার সোর্সে লাগিয়ে দেখুন।

পাওয়ার সাপ্লাই
ল্যাপটপের ক্ষেত্রে অনেক সময় চার্জারের সমস্যা হয়ে যেতে পারে, ঠিক মতো ভোল্টেজ সাপ্লাই না করতে পারলে ল্যাপটপ অন হবে না, যদি ব্যাটারির উপর ল্যাপটপ চালান, সেক্ষেত্রে ব্যাটারিরও সমস্যা হতে পারে, তাই ব্যাটারি খুলে চার্জারের সাথে ল্যাপটপ লাগিয়ে অন করার চেষ্টা করুণ। পিসিতে বেসিরভাগ সময় পাওয়ার সাপ্লাই ইউনিটের সমস্যা হয়ে যাওয়ার ফলেও কম্পিউটার অন না হতে পারে, সেক্ষেত্রে পাওয়ার সাপ্লাই পরিবর্তন করতে হতে পারে। আবার পিসি কেসিং এর পাওয়ার সুইচ খারাপ হয়ে যাওয়ার কারণেও কম্পিউটার অন না হতে পারে। কেসিং এর পাওয়ার সুইচ নষ্ট হয়ে যাওয়া এমন অবাক করা কিছু ব্যাপার নয়। সেক্ষেত্রে মাদারবোর্ডের পাওয়ার পিনে শট সার্কিট করিয়ে দেখুন কম্পিউটার অন করানো যাচ্ছে কিনা।

কম্পিউটার অন হচ্ছে কিন্তু আবার অফ হয়ে যাচ্ছে
কম্পিউটার অন না হওয়ার সমস্যা বিভিন্ন প্রকারের হতে পারে। যেমন- আপনার কম্পিউটার অন হচ্ছে কিন্তু আবার সাথে সাথে অফ হয়ে যাচ্ছে। আবার আপনার কম্পিউটার অন হয়ে বারবার রিস্টার্ট নিতে পারে, আবার হতে পারে ব্লু এরর স্ক্রীন শো করছে। কম্পিউটার অন করার পরে যদি লাইট দেখতে পান এবং হার্ড ড্রাইভ স্পিন করার শব্দ শুনতে পান, কিন্তু আবার ধপ করে যদি কম্পিউটার অফ হয়ে যায়, এক্ষেত্রে পাওয়ার সাপ্লাই এর সমস্যা হতে পারে। অথবা পিসি’তে কোন ক্যাবলেরও সমস্যা থাকতে পারে। একে একে সকল ক্যাবল গুলো খুলে ফেলুন, চিন্তা করার কোন কারণ নেই, যেভাবে ক্যাবল গুলো খুলেছেন,ঠিক সেভাবেই লাগাতে পারবেন। তারপরেও যদি ফিক্স না হয়, তো পাওয়ার সাপ্লাই রিপ্লেস করে দেখতে হবে।

কম্পিউটার হ্যাং প্রবলেম
অনেক সময় আপনার পিসি’র নয়—বরং আপনার মনিটরের সমস্যা হতে পারে। যদি আপনি দেখেন পিসি অন রয়েছে মানে পিসি থেকে ফ্যান আর হার্ড ড্রাইভের শব্দ আসছে সাথে পিসি অন করার সময় বিপ সাউন্ডও পেয়েছিলেন, সে ক্ষেত্রে হতে পারে আপনার মনিটরে কোন সমস্যা হয়ে গেছে। প্রথমে ভিজিএ বা এইচডিএমআই ক্যাবলটি চেক করে নিন। এবার আরেকটি মনিটর লাগিয়ে দেখুন সবকিছু ঠিকঠাক রয়েছে কিনা। আবার আপনার কম্পিউটার অন করার সময় অন তো হয়ে যাচ্ছে, কিন্তু তারপরেই হয়তো হাং হয়ে থেকে যাচ্ছে, এই সমস্যা সমাধানে এই আর্টিকেলটি দেখুন!

ব্লু স্ক্রীন অফ ডেথ
হতে পারে আপনার কম্পিউটার অন হয়ে উইন্ডোজ লোড নিতে শুরু করছে, কিন্তু ইতিমদ্ধে হঠাৎ কম্পিউটারে একটি ব্লু স্ক্রীন চলে আসলো আর এরর ম্যাসেজ দেখিয়ে কম্পিউটার রিবুট নিয়ে নিচ্ছে। এই এরর’কে ব্লু স্ক্রীন অফ ডেথ বলা হয়ে থাকে। অনেক কম্পিউটারের ক্ষেত্রে এটি একটি কমন সমস্যা, এতে আপনার কম্পিউটার অন হতে পারে না, বারবার রিস্টার্ট নিতে থাকে শুধু।

ব্লু স্ক্রীন অফ ডেথ
ব্লু স্ক্রীন অফ ডেথ এরর’এ এরর ম্যাসেজ সো করে, সেখান থেকে এরর ম্যাসেজটি দেখে নিন এবং গুগল করুণ। এই সমস্যা বেশিরভাগ সময় ত্রুটিপূর্ণ হার্ডওয়্যার বা হার্ডওয়্যার ড্রাইভার থেকে ঘটতে পারে। আপনার ঠিক কোনটির জন্য এই সমস্যা হচ্ছে সেটা বোঝার জন্য অবশ্যই এরর ম্যাসেজ গুলো চেক করতে হবে। যদি কম্পিউটার কিছুক্ষণ চলার পরে এরর ম্যাসেজ আসে, তো আমি বলবো সম্পূর্ণ কম্পিউটারের সকল ড্রাইভার সফটওয়্যার গুলোকে আপডেট করে নিন, এতে ৮০% টাইম সমস্যার সমাধান হয়ে যায়। তারপরেও যদি সমস্যার সমাধান না হয়, তো নিশ্চিত হার্ডওয়্যার প্রবলেম রয়েছে।

নো অপারেটিং সিস্টেম প্রবলেম
আপনার কম্পিউটার অন করলেন, কিন্তু কিছুক্ষণ পরে দেখছেন ব্ল্যাক স্ক্রীনে ম্যাসেজ আসছে “Operating system not found” —এ আরেক প্রকারের জ্বালা হতে পারে। প্রথমে চেক করে দেখুন, আপনার কম্পিউটারে কোন ইউএসবি ড্রাইভ বা ডিভিডি ঢুকানো রয়েছে কিনা। অনেক সময় BIOS হার্ডড্রাইভ থেকে কম্পিউটার বুট না করে ইউএসবি ড্রাইভ থেকে বুট করতে চায়, সেক্ষেত্রে অপারেটিং সিস্টেম নট ফাউন্ড এই এরর দেখাতে পারে। জাস্ট ইউএসবি আনপ্লাগ করে নিন, ব্যাস।

নো অপারেটিং সিস্টেম প্রবলেম
অপারেটিং সিস্টেম লোড না নেওয়ার আরো প্রবলেম থাকতে পারে। এক্ষেত্রে আপনার উইন্ডোজ রিপেয়ার করার প্রয়োজন পড়তে পারে। জাস্ট আপনার কম্পিউটারে উইন্ডোজের ইন্সটলেসন ডিস্ক বা ইউএসবি প্রবেশ করান, তারপরে রিপেয়ার মুডে চলে যান, উইন্ডোজ স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপনার উইন্ডোজ ফাইল গুলো রিপেয়ার করার চেষ্টা করবে।