Sunday , December 16 2018
Breaking News

গোপন প্রেমের সুযোগ নিয়ে ও আমাকে….

আমি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মাস্টার্স-এ পড়ছি, আমার জীবনে আমি নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে চাই। আর দশটা মেয়েদের মতো আমার জীবনটা সাজানো নেই।

আমার পরিবারে আমি, আব্বু আর আপু। আম্মু মারা গিয়েছে আমি তখন ক্লাস এইটে। এর পর থেকে আমাদের জীবনে হাজারো সমস্যার শুরু।

আমার আর দশটা মেয়ের মতো ইচ্ছে ছিল কাউকে ভালো লাগা, বিশ্বাস করা, এক সাথে এগিয়ে যাওয়া। কিন্তু আমার দুর্ভাগ্য না আমার যোগ্যতার সমস্যা, সেটা আমি জানি না।

জীবনে যে-ই এসেছে, নিজে থেকে এসেছে… তারপর একটা সময় আমাকে কাঁদিয়ে গেছে। জানি না কেন। জীবনে প্রথম প্রেমে পড়ি ক্লাস নাইনে, তাও বখাটে একটা ছেলের। যাকে আমি ভালবাসি তার ভালবাসা দেখে আর এই ভরসায় যে তাকে ভালবেসে ঠিক করবো।

আম্মু মারা যাবার পর আমি তখন আমার খালামনির বাড়িতে থাকতাম। নিজের হাত খরচ, টিউশনী ফী সরিয়েও তাকে দিতাম, এই ভেবে যে যা আমার তাই তার।

কিন্তু বিধি… আমার লুকিয়ে গোপন প্রেমের খবরের সুযোগ নিয়ে খালু আমাকে… তখন যৌন হয়রানির শিকার হই, নিজের খালু দ্বারা। আর যার আশায় এতো, সেও আমাকে ছেড়ে অন্য জনের সাথে সংসার পাতে। অনেক কষ্ট পাই আপু তখন।

এর ভিতরেই কোন ভাবে অ্যাডমিশন এক্সাম দিয়ে শুধু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পাই। ভাবি পড়ালেখা করে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করে, পিছনে ভুলে যাবো। কিন্তু পারিনি আপু।

আমার বড় বোনের এর ভেতর বিয়ে হয়, পারিবারিক চাপে…খারাপ একটা ছেলের সাথে। আব্বুর সমস্যা সবাইকে সহজে বিশ্বাস করা। এই ভুলেই সে নিজের ভাই-বোনের উসকানিতে খারাপ ছেলের সাথে সহজ বিশ্বাসে বিয়ে দেয়।

কিন্তু এক মাসের মাথায় আমরা জানি সে ড্রাগ এডিক্ট। আপু এক কথায় তাকে ডিভোর্স দায়। এর পর থেকে আর এক কষ্টের সূচনা হয়।

এরপর বিশ্ববিদ্যালয় থাকতে একজন আসে, স্বপ্ন দেখায়। সে BCS এর প্রস্তুতি আর তার জীবনের পুরানো প্রেমের কষ্টের অজুহাতে এক সময় আমার সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। তারপর আমার জীবনে যে আসে, হয় খারাপ ছেলে, যাকে আমি স্বপ্ন দেখি ভালো করার।

কিন্তু পারি না। আমার সাথে কয়েক মাস হোল একটা ছেলের পরিচয় হয়, facebook এ, পুরোপুরি unknown ID plus hide all । আমি তার সাথে প্রথমে কৌতুহলে মিশি, তার জীবনের ছোট বেলার কথা, ধীরে ধীরে মানুষের হাতে নষ্ট হওয়া, প্রেমের ও বৈবাহিক জীবনের ব্রেকআপ এসব শোনায়।

আর বলে সে এজন্য মানুষকে আর বিশ্বাস করতে পারে না, তাই মানুষের সাথে খেলে। আরও বলে কখনও বিয়ে করবে না জীবনে, এভাবেই খেলবে। আমার কি করে কি হয় জানি না, তার প্রতি সহানুভুতি না ভালবাসা জানি না আপু, তার প্রতি আমি দুর্বল হয়ে পড়ি।

ও পড়াশোনায় তেমন ভালো না। পড়ে বেসরকারি একটায়। সাথে পার্ট টাইম জব করে। ভাবি, আমার আব্বু তো আমার জীবনের জন্য ভালো বা যোগ্য কাউকে আনতে পারবে না, তাহলে নিজে থেকে খারাপকে ভালবেসে তাকে ঠিক করতে চাইলে ক্ষতি কি?

আব্বুর উপর মূলত আমি বিশ্বাস হারিয়ে ফেলেছি, আপুর সাথে হওয়া ওই ঘটনায়। আমি প্রতিক্ষণে ভয়ে থাকি, আমাকেও আব্বু কোন খারাপের হাতে তুলে দেবে কিনা।

আপু প্রথমে অনেক ভেঙ্গে পড়লেও counseling করে recover হয়। আর বলে, জীবনে বিয়ে সংসার সব না, কাজ এ ব্যাস্ত থাকতে চায়।
কিন্তু আমার জীবনে, আমি তো একটা অবলম্বন খুঁজি, আপু… আমার সাথে যে ছেলেটা এখন মিশছে, সে আমাকে এক সময় বলে ভালবাসে। এসব বলে ফোনেই কিস, প্রেমালাপ করে…আমি না ভালবেসে তার সাথে রাত জেগে দিনের পর দিন কথা বলি।

ভালবেসে ফেলি। কিছুদিন আগে ও ওর ফামিলির parents অসুস্থর কথা বলে ফোন বন্ধ করে দায়। আমি আশা হারিয়ে ফেলি আপু। এর দিন ৮ পরে কল দেয়, বলে তার parents অসুস্থ, তাই এখন আর ঢাকায় ফিরবে না, ওখানেই থাকবে।

তার রিলেটিভের ইচ্ছে সে বিয়ে করে সংসারী হোক। সেও পড়াশোনা আর করতে চায় না। আমি বলি আমাদের ভালবাসার কথা, সে বলে ও বিয়ের কথা হলেও বিয়ে করবে না ৭-৮ বছর আগে।

আমাদের রিলেশনের কথা বললে বলে, এভাবেই চলুক। ও আমার সাথে ফোনে ফ্রেন্ড এর মতো মিশবে, ভালবাসবে, প্রয়োজনে সম্পর্ক এগুবে কিন্তু সংসার দু জন দু দিকে।

আমি এখনো আশা নিয়ে আছি আপু, যদি ওকে ভালবেসে সারাতে পারি, এক সময় হয়ত আমার সাথেই আসবে। আপু, আমি রোজ কান্নাকাটি করি, কষ্ট পাই… জানি না কেন আমার ভাগ্যটা এমন।

আমি কেন আমার যোগ্য সৎ কাউকে খুঁজে পাই না, যে আমাকে আমার মতো অনেক ভালবাসবে।কেন আমার ভাগ্যে এমন খারাপ ছেলে গুলো আসে… আমি জানি না এখন আমি কী করবো। আমার সেই স্বপ্ন কখনই পূর্ণ কি হবে না? কেন ভাগ্য এমনটা হল? আমি এখন কি করবো, আপু?

প্রশ্নটি আমাদের ফেসবুক পেজে করেছেন : নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন।

পরামর্শ: খুব সহজ কথায় বলি, কেমন? আপনার সাথে যা হয়েছে তাতে ভাগ্যের কোন দোষ নেই, বেশীরভাগ দোষ আপনার নিজেরই! আপনি নিজেই বারবার ভুল মানুষকে বেছে নিয়েছেন।

আপনি এমন এক হিন্দি সিনেমা টাইপ ফ্যান্টাসির জগতে বাস করছেন ও সেটার আলোকে জীবন যাপনের চেষ্টা করছেন যে এটা তো একেবারে অভিয়াস… যা হয়েছে, সেগুলোই হবার ছিল।

“ভালোবেসে খারাপকে ভালো করে নিব”- এটা হিন্দি সিনেমার ফ্যান্টাসি ছাড়া আর কী? হিন্দি সিনেমায় নায়কেরা বখাটে থাকে, নায়িকাকে পেয়ে শুধরে যায়। বাস্তবে সেটা হয় না। কোনদিনই না।

একজন মানুষ কখনো আরেকজনকে পরিবর্তিত করতে পারে না, যদি না মানুষটি নিজে পরিবর্তিত হতে চায়। একজন মানুষ সম্পর্কে বিস্তারিত না জেনে বুঝে কি চট করে প্রেম করে ফেলা যায়? ভালবাসা কি আদতেই এত সহজ যে আজ একজন আর কাল আরেকজনের সাথে হয়ে গেলো?

আমি আপনাকে মোটেও বকা দিচ্ছি না, আপু। ইচ্ছা করেই কথাগুলো সোজা করে বলছি যেন আপনি বুঝতে পারেন। এখন বড় হয়েছেন, এভাবে একের পর এক ভুল সম্পর্কে জড়ানোর পরিণতি আপনার জন্য ভয়াবহ প্রমানিত হতে পারে।

এবং আমি চাইনা সেই ভয়াবহ সময়টি আপনার জীবনে আসুক। যদিও অনেক কিছুই হয়ে গিয়েছে, কিন্তু আমার মনে হয় এখনও ঘুরে দাঁড়ানো সম্ভব।

দেখুন, যে ছেলেটির সাথে আপনার এখন সম্পর্ক আছে, সেও একটি ফ্রড। শুধু ফ্রড নয়, আমার ধারণা সে বিবাহিত এবং কেবলই আপনার সাথে টাইম পাস করছে। এমনও হতে পারে যে সে কোন ছেলেই নয়, বয়স্ক লোক।

কেউ কাউকে সত্যিকারের ভালবাসলে অতি অবশ্যই বিয়ে করতে চাইবে। বিয়ে না করে গোপনে আজীবন সম্পর্ক রাখা বলতে আসলে কিছু নেই। সেটা কেবলই টাইম পাস। এবং এই ধরণের ফ্রড এখন ফেসবুকে, বাস্তব জীবনে অহরহ আছে।

ভুলটা আপনারই হয়েছে যে আপনি ফেসবুকের একজন অজানা মানুষকে সুযোগ দিয়েছেন আপনার সাথে সম্পর্ক করার! প্রেম করাটা কি এতই জরুরী আপু যে যার-তার সাথেই করতে হবে? কেউ কথা বলতে চাইলেই কথা বলতে হবে, প্রেম করতে চাইলেই হ্যাঁ বলতে হবে… আপনার নিজের কি কোন ব্যক্তিত্ব নেই?

দেখুন, একটা মানুষের অবলম্বন কখনোই আরেকটি মানুষ নয়। প্রেমিক বা স্বামী কখনোই আপনার জীবনের অবলম্বন হবে না। সেই ভুল ধারণা মনে পুষে রাখলে আজীবন কিন্তু এভাবেই কেটে যাবে।

আপনার জীবনের অবলম্বন আপনি নিজে, আপনার পরিবার ও আপনার ক্যারিয়ার। জীবনে সফল হলে কত ভালো ভালো ছেলেরা ভালোবাসার আহবান নিয়ে আসবে।

কিন্তু এমন ব্যর্থ অবস্থায় ধুঁকে ধুঁকে জীবন কাটালে আসলে কাউকেই পাবেন না, সব সময়েই ফ্রড মানুষের পাল্লায় পড়বেন যাদের আপনাকে নিয়ে কোন ফিউচার প্ল্যান নেই।

আপনি কি ভেঙে পড়া, বিধ্বস্ত কোন দোকান থেকে শপিং করতে আগ্রহী হবেন? হবেন না। তেমনই, একজন ভেঙে পড়া বিধ্বস্ত মানুষের সাথেও কেউ সম্পর্ক করতে আগ্রহী হয় না।

এটাই চিন্তা করে যে ওর সাথে সম্পর্ক করে আমি কী পাব? তাছাড়া এমনই একের পর একটা খারাপ সম্পর্কে যদি জড়াতে থাকেন, তাহলে একজন সত্যিকারের ভালমানুষের দেখা কোনদিন পাবেন না। পেলেও তার কাছে যাবার কোন উপায় থাকবে না। কারণ নিজের জীবনের পঙ্কিলতার মাঝে আপনি ডুবে থাকবেন।

একজন মানুষ আসবে, আপনার জীবনের সবকিছু ঠিক করে দেবে… এইসব ভুল ধারণা বাদ দিন। বর্তমান প্রেমিককে এক বাক্যে ত্যাগ করুন। নিজের জীবন নিজে গড়ে নিন। লেখাপড়ায় মন দিন, ক্যারিয়ার গড়ুন। বাবা বিয়ে দিতে চাইলেই তো আর বিয়ে হবে না।

ক্যারিয়ারে সফল হবার পর দেখেশুনে না হয় বিয়ে করবেন যোগ্য কাউকে। অসহায় দুঃখিনী রাজকন্যার রোল প্লে বাদ দিয়ে একজন সফল ও আত্মবিশ্বাসী নারীর ভুমিকায় নিজেকে গড়ে নিন। দেখবেন যে সব সমস্যা দুর হয়ে যাচ্ছে জীবনের।

আর একা একা সেটা না পারলে কোন ভালো কাউন্সিলারের সহায়তা নিন। আমি আবারও বলছি আপু, জীবনে যখন সফলতার মুখ দেখবেন, আস্তে আস্তে আপনার সম্পর্কগুলোও সফল হতে শুরু করবে। পৃথিবীতে সবাই একজন সুখী মানুষের সংস্পর্শ চায়, দুঃখী মানুষের সঙ্গী হতে কেউ চায় না।