Thursday , April 26 2018
Breaking News

যে কৌশলে ভোটের মাঠে নামলেন মাশরাফি

নড়াইল-এক্সপ্রেস’ নামটা কারও কাছেই অপরিচিত নয়। দেশের ক্রিকেটের সীমানা পেরিয়ে এই নাম পৌঁছে গেছে ক্রিকেট বিশ্বের আনাচে কানাচে। কিন্তু ‘নড়াইল-এক্সপ্রেস’ ফাউন্ডেশন কত জন চেনে। খুলনা বিভাগের ছোট একটি জেলা শহর নড়াইল। মাত্র ৯৯০.২৩ বর্গ কিলোমিটার আয়তনের এই জেলায় জনসংখ্যা প্রায় ৯ লাখ। চিত্রা নদীর পাড়ের এই জেলা শহরটি অন্যান্য জেলা শহরের তুলনায় এতটা উন্নত নয়। শহরের দিকে কিছুটা উন্নতির ছোঁয়া লাগলেও গ্রামের দিকে ততটা না।
বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। যার হাত ধরে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট। তার কাছ থেকে তো নড়াইলের মানুষের কিছু চাওয়া-পাওয়া থাকতেই পারে। এটাই স্বাভাবিক। নড়াইলের সন্তান হয়ে নড়াইলের জন্য কিছু করাটাও নিশ্চয়ই মাশরাফি’র জন্য গর্বের। তাই নড়াইল জেলার সর্বসাধারণকে নিয়ে নড়াইলের উন্নয়নে প্রতিষ্ঠা করা হয় ‘নড়াইল-এক্সপ্রেস’ফাউন্ডেশন।

শুরু থেকেই ফাউন্ডেশনটি কাজ করছে শিক্ষা, চিকিৎসা, সংস্কৃতিসহ সামাজিক সব কর্মকাণ্ড নিয়ে। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটি কাজ করে নড়াইলের মানুষের কাছে সাড়া ফেলেছে নড়াইল-এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন। ‘নড়াইল হবে প্রজন্মের অন্যতম সেরা বাসস্থান’এই লক্ষ্যকে সামনে রেখে ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর থেকে কাজ শুরু করে এই ফাউন্ডেশন।

মাশরাফি বিন মুর্তজা-নড়াইল-এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন-নড়াইল এক্সপ্রেস-ক্রিকেট-Mashrafe Bin Mortaza-NarailExpress Foundation-Rtvonline

উল্লেখযোগ্য কাজগুলোর মধ্যে অন্যতম ছিল নড়াইলের চিকিৎসা ব্যবস্থার উন্নতির জন্য রংপুর রাইডার্স দলের কাছ থেকে অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে দেয়া। বহুজাতিক ও আন্তর্জাতিক মান স্বীকৃত প্রতিষ্ঠান থাইরোকেয়ার এর সাথে চুক্তি হয়। যার ফলে অর্ধেক খরচে ৪০০ এর অধিক রক্ত পরীক্ষা করার সুবিধা পাবে যার মধ্যে আছে ক্যানসারের পরীক্ষা।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে নড়াইলের নানা শ্রেণীর সুবিধা বঞ্চিত মানুষদেরকে সহযোগিতার জন্য ‘নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন’ আয়োজন করেছিল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ‘কনসার্ট ফর দ্যা হেল্পলেস’। এখান থেকে প্রাপ্ত অর্থ তার সবই সুবিধা বঞ্চিত মানুষদের জন্য ব্যয় করা হবে বলে জানিয়েছেন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মাশরাফি বিন মুর্তজা।

নড়াইলের যেসব এলাকায় বিদ্যুৎ এখনো পৌঁছায়নি সে সব এলাকার প্রায় ১০০টি পরিবারের জন্য সোলার লাইটের ব্যবস্থা করে দেয়া হয়েছে এই ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে।

নড়াইলের চিকিৎসা সেবাকে এগিয়ে নিতে দেশের স্বনামধন্য ক্লিনিক ও ডায়াগনোসিস সেন্টার ‘প্রেস্ক্রিপশন পয়েন্ট’এর মধ্যে চুক্তি সম্পাদিত হয়েছে। চুক্তি অনুযায়ী ১ এপ্রিল থেকে প্রেস্ক্রিপশন পয়েন্ট এর বনানী ও বাড্ডা শাখায় ৫০% ছাড়ে সকল ধরনের স্বাস্থ্য সেবা পাবে।

সর্বশেষ সংযোজন হিসেবে বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় অতীশ দীপঙ্কর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের যুক্ত হওয়া। এ প্রসঙ্গে মাশরাফি বলেন, নড়াইলের মানুষের স্বাস্থ্য সেবার পরই যেটা আমাদের কাছে অগ্রাধিকার সেটি হচ্ছে শিক্ষা ব্যবস্থার মানোন্নয়ন, এ লক্ষে নড়াইলের অসহায় দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীদের জন্য আমাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে অতীশ দীপঙ্কর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।

গতকাল (সোমবার) এই বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন এর একটি চুক্তি সম্পাদিত হয়, এর ফলে এখন থেকে প্রতি বৎসর অন্তত বিশজন (২০) ছাত্র ছাত্রীদেরকে এই বিশ্ববিদ্যালয়ে ১০০% ফ্রি স্কলারশিপে পড়ার সুযোগ করে দিবে। এটা নড়াইলের দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীদের জন্য অনেক উপকারে আসবে বলে আমি মনে করি, এবং আনন্দের কথা হচ্ছে এই ১০০% ফ্রি স্কলারশিপ সুবিধা অতীশ দীপঙ্কর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় আগামী ১০ বৎসর ও তার অধিক সময় পর্যন্ত নড়াইলের ছাত্র ছাত্রীদের জন্য চালু রাখবে। আমি অতীশ দীপঙ্কর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় কে বিশেষ করে আরিফুল বারী ভাইকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানাচ্ছি ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি এরকম একটি মহৎ সহযোগিতা করার জন্য। কিভাবে ছাত্র ছাত্রীদেরকে নির্বাচন করা হবে তা পরবর্তীতে জানিয়ে দেয়া হবে।
নড়াইল-এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মাশরাফি বিন মুর্তজা স্বপ্ন দেখেন শুধু নড়াইলেই নয়, নড়াইলের গণ্ডি পেরিয়ে নড়াইল-এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন পৌঁছে যাবে সারা বাংলাদেশে।