Friday , December 14 2018
Breaking News

সারিকা ফাঁসালেন, তিশা ফাঁসলেন!

গত ২১ মার্চ মডেল-অভিনেত্রী সারিকার নেপাল যাওয়ার কথা ছিল। উদ্দেশ্য ছিল নাটকের শুটিং। কিন্তু সময়মতো নির্মাতা ও অন্যান্য শিল্পী কলাকুশলী উপস্থিত হলেও এয়ারপোর্টে ছিলেন না সারিকা। তিনি যথাসময় আসবেন বলে জানিয়েছিলেন। পরে সারিকার সঙ্গে মুঠোফোনে বারবার যোগাযোগ করা হলেও তখন নাম্বারটি বন্ধ পান সংশ্লিষ্টরা।

এ নিয়ে নেপাল থেকে ফিরে মুখ খুললেন একই ইউনিটের অভিনেত্রী মডেল তানজিন তিশা। তিনি বলেন, নেপালে গিয়ে খুব খারাপ অভিজ্ঞতা হয়েছে। খারাপ অভিজ্ঞতা বলতে, সারিকা আপু ফাঁসিয়ে দিলো।

তবে সারিকা ফাঁসিয়েছেন ইউনিটকে আর পরবর্তীতে ইউনিট ফাঁসিয়েছে তিশাকে। এই প্রসঙ্গে তিশা বলেন, সারিকা আপু তাদের ফাঁসানর কারণে, এরপর এই প্রেসারটা আমার ওপর পড়লো। আমি যে দুইটা স্ক্রিপ্ট নিয়ে নেপালে গেলাম, ওই স্ক্রিপ্টে কাজ না করে ডিরেক্টর অন্য স্ক্রিপ্ট আমাকে ধরিয়ে দিলো। তারপর আমি চারটা নাটকের কাজ করলাম।

এদিকে এখানেই শেষ নয়, ঢাকায় নির্দিষ্ট সময়ে ফেরা নিয়েও তিশার সাথে প্রতারণা করেছে শুটিং ইউনিট। তিশা বলেন, একটা বাজে কাজ তারা করেছে। আমার ২৭ মার্চ দেশে ফেরার কথা ছিল। ওরা আমাকে ২৭ তারিখের টিকিট দিয়েছিলো। কিন্তু ২৭ তারিখের টিকিট ছিলো ভুয়া। পরে দেখি ওটা ২৮তারিখের টিকিট। আমাকে নেওয়ার জন্য ২৭ তারিখের ভুয়া টিকিট বানিয়েছে। একজন আর্টিস্টের সাথে এমন হওয়া খুবই বেমানান।

তিশা ক্ষোভ নিয়ে বলেন, সারিকা আপু যেটা করেছে, সিডিউল ফাঁসিয়েছে সে হয়তো খারাপ করেছে। জানিনা কেন সে এমন করেছে। তারা আবার আমার সাথে তারা যা করেছে সেটাও ভালো করেনি।