Friday , September 21 2018
Breaking News

যে খাবারগুলো খেলে নিমিষেই ঘুম চলে আসবে

অনেকেই আছেন যারা বিছানায় গা এলিয়ে দিলেই চলে যান ঘুমের স্বর্গে। নিদ্রাদেবী যেন দুহাত ভরে ঘুম নিয়ে অপেক্ষা করে বসে থাকেন তাদের চোখে ঘুম এনে দেওয়ার জন্য। কিন্ত অনেকের ক্ষেত্রে ঘটে উল্টো ঘটনাও। অনেকেই আছেন যাদের রাতে বিছানায় শোয়ার পর ঘন্টার পর ঘন্টা পার হয়ে যায় কিন্ত ঘুমের দেখা মেলা ভার। সারারাত না ঘুমানোর ফলে মেজাজ হয়ে থাকে খিটখিটে, শরীরে ক্লান্তিভাবও চলে আসে। ঘুমের জন্য মানুষ নানারকম অসুধ খায়,করে অনেক সাধনা। কিন্ত আরাধ্য ঘুম ধরাছোয়ার বাইরেই থেকে যায়। অথচ আমাদের দৈনন্দিন জীবনে নিয়মানুবর্তিতা আর কিছু খাবারই ঘুম এনে দিতে পারে। আজ জানবো কি কি খবার খেলে নিমিষেই ঘুম চলে আসবে-

১। দইঃ দইকে অনেকেই ফ্যাটি খাবার বলে মনে করে থাকেন। কিন্ত বাস্তবে তা নয়। প্রতিদিন রাতে তিনকাপ করে দই খান। না ঘুমানোর অভ্যাসে অনেক পরিবর্তন আসবে। পাবেন অনেক উপকার।

২। রসুন ও দুধঃ বাঙালি মাত্রই রসুনের পুষ্টিগুণ সম্পর্কে অবগত। আর দুধ তো আদর্শ খাদ্য জানা কথা। হালকা গরম দুধের সঙ্গে এক ফালি রসুন মিশিয়ে মিনেট পাচেক পর খেয়ে ফেলুন। যা আপনাকে মানসিক চাপ কমিয়ে ঘুমাতে সাহায্য করবে।

৩। চেরী ফলের জুসঃ চেরি ফল দেখতে যেমন সুন্দর খেতে হয়তো অনেকের কাছে ততটা সুন্দর মনে হয়না। কিন্ত ঘুম না আসার অভ্যেস থাকলে ঘুমানোর আগে চেরী ফলের জুস খেয়ে দেখতে পারেন। উপকার পাবেন।

৪। লাউয়ের জুসঃ লাউয়ের তরকারী খেতেই আমরা অভ্যস্ত। আবার কেউ কেউ লাউয়ের ভাজিও খায়। কিন্ত লাউয়ের জুস খেয়ে নিন ঘুমানোর আগে। দেখবেন দ্রুত ঘুম চলে আসবে।

৫। কলা: কলার পুষ্টিগুণ অনেক। কলাতে প্রচুর পরিমাণে পটাসিয়াম ও ম্যাগনেসিয়াম রয়েছে। ঘুমানোর আগে কলার সঙ্গে গরম দুধ খেলে ভালো উপকার হয়।

৬। জায়ফলঃ বিরিয়ানি এবং তেহারী রান্নায় বেশি ব্যবহৃত হয় জায়ফল। গরম পানির সঙ্গে ঘুমানোর আগে জায়ফল খেলে উপকার পাওয়া যায়।

৭। মধুঃ মধুর রয়েছে বিশেষ পুষ্টিগুণ। মধুতে ৪৫ টি বিশেষ খাদ্য উপাদান থাকে। খাঁটি মধু আপনাকে প্রাণবন্ত করে তোলে। ঘুমানোর আগে এক চামচ মধু বিশেষ টনিক্ম হিসেবে কাজ করে। যা ভালো ঘুমাতে সাহায্য করে।

৮। গ্রিন টিঃ চা’কে অনেকেই ঘুম তাড়ানোর ঔষধ হিসেবে মনে করে। কিন্ত বাস্তবিক ক্ষেত্রে ঘুমানোর আগে এক কাপ গ্রিনটি আপনাকে ভালো ঘুমাতে সহায়তা। শুধু ঘুমই নয়, নিয়মিত গ্রিন টি ক্যান্সার, হার্টের রোগসহ নানা রোগ প্রতিরোধে সহায়তা করে।